ক্যারিয়ার নির্দেশনা: কোন দিকে করলে ভাল হবে।

ক্যারিয়ার নির্দেশনা: কোন দিকে করলে ভাল হবে।

ক্যারিয়ার কোন দিকে করা উচিত।


ভাল লাগার বিষয়ে নাকি আর্থিক লাভ আছে এমন কোন বিষয়ে। সংস্কৃতি বা মিডিয়ার ক্যারিয়ার গড়ার ক্ষেত্রে অশোভন কিছু পরিবেশের সম্মুখীন হতে হয় কী করা উচিত।

এটা নিয়ে একটা গল্প বলি, সেটা হচ্ছে যে বাড়ির বৈঠকখানার সামনে দিয়ে গৃহকর্তী বের হবেন। গৃহকর্তা বলছে যে হুজুর অন্যদিকে মুখ করেন। আমার বেগম সাহেবা বাজারে যাবেন। হা হা হা…

প্রত্যেক ক্যারিয়ারের কিছু কৌশল আছে। সেটা আপনাকে বুজতে হবে। এটাতে এই আছে। আপনাকে ওই কৌশল রপ্ত করতে হবে। আপনি যদি সেটার সাথে এডজাস্ট করতে পারেন, ওই ক্যারিয়ারে আপনি উন্নতি করতে পারবেন।

অথাৎ, ওই ক্যারিয়ার থেকে আপনি যা পাওয়ার পাবেন। আর যদি না পারেন, তাহলে ঐ ক্যারিয়ারে গিয়ে আপনার কোন লাভ নেই।

ক্যারিয়ার ভাল লাগার বিষয়ে নাকি আর্থিক লাভ আছে এমন কোন বিষয়ে।

একটা জিনিস হচ্ছে
• ভাল লাগতে হবে
• মানুষের কল্যান

জিনিসটা আমার ভাল লাগতে হবে। এবং জিনিসটার মধ্যে কল্যান আছে কিনা তা বুঝতে হবে।

আমি যে ক্যারিয়ার বা কাজটা করব এটা যদি কল্যানের জন্য না করি, এটা যদি অকল্যানের জন্য হয় তাহলে আল্টিমেটলি কে ক্ষতিগ্রস্হ হয়।

আমি ক্ষতিগ্রস্হ হবো। আমার ইহকাল ক্ষতিগ্রস্হ হবে। ইহকাল এবং পরকাল দুটোই।

অর্থের প্রয়োজন আছে। অর্থের প্রয়োজন নেই তা না।

কিন্তু অর্থ কখোনও শান্তি দিতে পারে না। এই বিষয়টা আপনার কাছে পরিষ্কার থাকতে হবে। অর্থ কখনো শান্তি দিতে পারে না।

এবং তৃপ্তি টা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমি কাজটা কেন করব। এটা আমার কাছে পরিষ্কার থাকা উচিত।

আমি এই প্রফেশন যেমনঃ আমি ডাক্তার হবো কেন হবো, আমি BCS officer হবো কেন হবো, আমি ইঞ্জিনিয়ার হবো কেন হবো। এই কেন-র উত্তর টা থাকা উচিত।

ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার ফিছনে যদি থাকি তাহলে যে কোন প্রজেক্টে তাদের একটা পারসেন্টেজ থাকে। ওটা আর বলতে হয়না।

শোনা কোথা আসল কী তা তো জানিনা। তো এখন ওই কমিশনের জন্য আমি ইঞ্জিনিয়ার হবো। না আমি আমার দেশের জন্য ইঞ্জিনিয়ার হবো। ভাল কাজ করার জন্যে, কাজটা যাতে সুন্দর হয়। সুন্দর ভাবে করা যায়, সেরকম ইঞ্জিনিয়ার হবো এটা গুরুত্বপূর্ণ।

আমি ডাক্তার কি শুধু ফিস নেওয়ার জন্যে। না আমি রোগীকে ভাল করার জন্যে।
কীজন্যে কাজটা করব এটা গুরুত্বপূর্ণ।

যখন আপনি অর্থের জন্য করবেন। আপনার অর্থ আসবে। কিন্তু আপনার কাজটা এখানেই শেষ হয়ে গেল। এ কাজের প্রতিফল আপনি পরকালে পাবেন না।

যখন আপনি কোন শোষকের জন্য কাজ করবেন। আঃ আপনি কাজ করছেন। কাজের বিনিময়ে আপনি কী পাচ্ছেন। পারশ্রমিক পাচ্ছেন, টাকা পাচ্ছেন। আপনার কাজটা এখানেই শেষ হয়ে গেল। ভাল মন্দ যা কিছু এখানেই শেষ।

কিন্তু আপনি একজন BCS officer, officer হয়ে লক্ষ্য যদি এটা থাকে ফাইল আটকানো না। একটা মানুষ কাজ নিয়ে আসছে, আমি কত সহজে কাজটা করে দিতে পারি। আপনার এই কাজও একটি ইবাদত। ভাল কাজের মাধ্যেমে ইবাদত হয়ে গেল।

আপনি যখন ফাইল আটকালেন। তাকে ঘোরালেন এবং আপনি একজন জালেম এ পরিনত হলেন। আপনার এটা জুলুম।

কাজটা কী জন্য করব এটা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ

অতএব, কাজটা কেন করবেন। কী কারনে করবেন। এটা গুরুত্বপূর্ণ, সবসময় উদ্দেশ্যে থাকা উচিত। আমি যে কাজটা করব তা যেন সেবায় পরিনত হয়। তাহলে আপনি ইহকালে তৃপ্তি পাবেন পরকালেও তৃপ্তি পাবেন।

আরও পড়ুন >>

টাকা দিয়ে টাকা বানানোর উপায়, কীভাবে ইনভেস্ট করে ধনী হবেন।

টাকা জমানোর 11 টি উপায়। Money saving Tips

admin

admin

My name is Md Masudur Rahman. I’m a believer, I’m a dreamer and I’m a doer. I am well known in content creation, Presentation & Leadership skill. I can speak very well both in Bengali and English.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।