চোখ ভাল রাখার সহজ উপায় | Bangla health Tips

চোখ ভাল রাখার সহজ উপায় | Bangla health Tips

চোখ মানুষের অন্যতম একটি প্রধান অঙ্গ। দৃষ্টি ছাড়া চোখ তীর ছাড়া ধনুকের মত। দৃষ্টি ছাড়া আমাদের এই সুন্দর পৃথিবীর কথা চিন্তাও করতে পারি না। যদিও আমাদের দৃষ্টিশক্তি হ্রাস পায়, বা দৃষ্টিশক্তি পুরোপুরি চলে যায় তাহলে আমাদের কর্মক্ষমতা 80 থেকে 90 শতাংশ হ্রাস পাবে।

কম দৃষ্টিশক্তি বা চোখে চশমা লাগানোর অনেক কারণ থাকতে পারে যেমনঃ

  • বেনিয়ম জীবনযাত্রা
  • দীর্ঘ সময় টিভি দেখা
  • অত্যধিক মোবাইল ব্যবহার করা বা পরিবেশ দূষণ।

আজ আমরা জানবো কিভাবে চোখ ভালো করা যায় এবং দীর্ঘদিন কিভাবে চোখ ভালো রাখা যায় তার জন্য কিছু টিপস এন্ড ট্রিকস শেয়ার করব। তো ফ্রেন্ডস আমাদের সঙ্গে থাকুন আর শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

তো চোখ ভালো রাখার জন্য কি কি করতে হবে তা চার ভাগে ভাগ করে আলোচনা করবোঃ

  1. দৈনন্দিন অভ্যাস পরিবর্তন
  2. চোখের ব্যায়াম
  3. চোখ ভালো রাখার জন্য কি কি খাবেন
  4. চোখের ম্যাসাজ

1. দৈনন্দিন অভ্যাস পরিবর্তন

কি কি দৈনন্দিন অভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে:

কম্পিউটার ও মোবাইলের ব্যবহার কমানো।

  • আমাদের মধ্যে অনেকেই দীর্ঘ সময় কম্পিউটার বা মোবাইলে কাজ করি। এ সময় অনেকেই চোখের পলক ফেলতে ভুলে যান। এর ফলে তাদের চোখের লুব্রিকেন্ট বা জলীয় পদার্থ শেষ হয়ে যায় বা কমে যায়। আর চোখে ব্যথা অনুভূত হয়।
  • তাই আপনি যদি দীর্ঘ সময় ধরে কম্পিউটার বা মোবাইল ইউজ করছেন। তাহলে 1 ঘন্টা অন্তর ঠান্ডা জল দিয়ে চোখ ধুতে হবে। এতে লুব্রিকেশন ঠিক থাকবে স্বস্তি অনুভূত হবে। আর সহজে চশমা লাগবে না।

ঘুমের ঘাটতিঃ

  • আধুনিক লাইফস্টাইলে কম ঘুম বা ঘুমের ঘাটতি একটা কমন প্রবলেম। যদি আপনি কম ঘুমান তবে এর খারাপ প্রভাব আপনার চোখের উপর পড়বে। যার ফলে চোখের নিচে কালি তো পড়বেই। সাথে সাথে চোখের জ্যোতি ও হ্রাস পাবে।
  • এজন্য প্রতিদিন কমপক্ষে সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুম জরুরি। রাত এগারোটা থেকে দুটো পর্যন্ত বেস্ট টাইম ফর ঘুম।

UV প্রটেকশন

  • সূর্যের আলোতে অনেক ধরনের রে থাকে তার মধ্যে অন্যতম হলো আল্ট্রাভায়োলেট রে বা অতি বেগুনি রশ্মি যা চোখের পক্ষে খুবই ক্ষতিকারক। দিনের বেলা ফাঁকা জায়গায় সূর্যের আলোর মধ্যে অবশ্যই প্রটেক্টেড সানগ্লাস ইউজ করতে হবে চোখকে রক্ষা করতে।

ইলেকট্রনিক ডিভাইসে কম সময় দিতে হবেঃ

  • চেষ্টা করতে হবে যতটা সম্ভব ইলেকট্রনিক ডিভাইস যেমন ল্যাপটপ, কম্পিউটার, প্যাড, মোবাইল এগুলো কম ব্যবহার করা যায়। রাতে শোয়ার পরে এগুলো ব্যবহার না করাটাই ভালো। স্পেশালি অন্ধকারে এটা খুবই ক্ষতিকর। তাই কখনো এটা করবেন না।

2. চোখের ব্যায়ামঃ

প্রথম টি হলো plaming:

চোখের স্ট্রেস দূর করার জন্য আপনার দুহাত একসাথে ঘষুন। যার ফলে হাতের তালু গরম হবে। এবার চোখ বন্ধ করে হাতের তালু দুটি চোখের উপর রাখতে হবে 10 সেকেন্ড। খেয়াল রাখতে হবে চোখের উপর হাত রাখার পর যেন বাইরের আলো না দেখা যায়। এটি দিনে পাঁচ থেকে দশ বার করতে হবে।

Eye circle :

  •  ক্লকওয়াইজ চোখকে ঘোরাতে হবে যতটা বেশি এরিয়া নিয়ে ঘোরানো সম্ভব ঘোরাতে হবে। এক্ষেত্রে কতবার ঘোরাচ্ছি তার থেকে বেশি ইম্পর্টেন্ট কতটা বেশি এরিয়া নিয়ে ঘোরাতে পারছি। 15 থেকে কুড়ি বার করতে হবে।
  • এবার এন্টি ক্লকওয়াইজ ঘোরাতে হবে। এবারও একই কথা যতটা বেশি এরিয়া জুড়ে ঘোরানো সম্ভব তত বেশি উপকার। প্রথম প্রথম এটা করতে প্রবলেম হবে ঠিকই। অলওয়েজ রিমেম্বার দ্যাট প্র্যাক্টিস মেকস ইউ পারফেক্ট।

Horizontal Lines :

  • হরাইজন্টাল লাইনস আনুভূমিকভাবে চোখকে দুপাশে ঘোরাতে হবে প্রথমে মাঝখান থেকে বাঁদিকে পাঁচবার, চোখের মনি কে নিয়ে যেতে হবে।
  • আবার মাঝখানে নিয়ে আসতে হবে একইভাবে মাঝখান থেকে এবার ডান দিকে তাকাতে হবে পুনরায় মাঝখানে আনতে হবে।
  • এই দুই মুভমেন্টই পাঁচবার পাঁচবার করে করতে হবে।

verticle Lines:

  • ভাটিকেল লাইনস উলম্বভাবে উপর নিচ করতে হবে। চোখের মনি মাঝখান থেকে উপর দিকে এবং পুনরায় মাঝখানে এভাবে 5 বার করতে হবে।

Blink for a minute :

  • মিটমিট করুন। চোখ রিলাক্স করার জন্য মিটমিট করা খুব সহজ এবং কার্যকরী একটি পদ্ধতি।
  • এটি তিন ভাবে কাজ করে, চোখে লুব্রিকেন্ট বা জলীয় পদার্থ ঠিক রাখে। চোখ পরিষ্কার করে এবং চোখ আলো থেকে ব্রেক পাই।
  • কম চোখের পলক ফেললেই চোখ শুকিয়ে যায় এবং ধীরে ধীরে দৃষ্টিশক্তি কমিয়ে দেয়। রেগুলারলি এটি করতে থাকুন। 30 থেকে 60 সেকেন্ড যেকোনো স্থানে যেকোনো সময়।

3. চোখ ভালো রাখার জন্য কি কি খেতে হবেঃ

  • ভিটামিন এ হলো চোখের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। এটা চোখের বিভিন্ন অংশের আবরণ কে রক্ষা করে। এর অভাবে চোখ শুষ্ক হয়ে যায়। এবং পরবর্তীতে চোখ নষ্ট হয়ে যায়।
  • ভিটামিন এ এর সাথে সাথে ভিটামিন সি এবং ভিটামিন ই এর প্রয়োজনীয়তাও আজ বহুলভাবে প্রমাণিত। এদের একসাথে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বলা হয়।
  • এসব ভিটামিন বয়স জনিত চোখের দৃষ্টিকে অনেকাংশে রোধ করে।
  • প্রোটিন বা আমিষ জাতীয় খাদ্যের অভাবে চোখের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস পায়। ফলে চোখ বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত হয়।

এবার আমরা একটা লিস্টের মাধ্যমে দেখে নেবো কি কি খেতে হবেঃ

ডিম

এতে আছে ভিটামিন এ, এটা রাতকানা রোগ কমায়। তারপর

সানফ্লাওয়ার সিডস

এটাতে ভিটামিন ই এবং জিংক আছে।

ফিস অয়েল বা মাছের তেল

এটাতে আছে ওমেগা থ্রি, ফ্যাটি এসিড এটা চোখ শুষ্ক হতে দেয় না। চোখকে ছানির হাত থেকে বাঁচায়।

এরপর সিম ছুটি কলাই এবং বিভিন্ন ডাল

এগুলো চোখের রেটিনাকে রক্ষা করে যেটা চোখের ছানির হাত থেকে বাঁচায়। তারপর

বাদাম

এটাতে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা 3 ফ্যাটি এসিড এবং ভিটামিন থাকে চোখের শক্তি বৃদ্ধি পায়।

এরপর বিভিন্ন ফল ও শাকসবজি খেতে হবে

যেমন

  • গাজর
  • টমেটো ভর্তা
  • আঙ্গুর

এগুলোতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ এবং সি থাকে। এছাড়া রসুন আখের রস ডাক চকলেট চোখের দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে ও বৃদ্ধি করতে খুবই সাহায্য করে।

4. চোখের ম্যাসাজঃ

 আকুপাংচার পয়েন্ট

মানব শরীরে বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য আকুপাংচার পয়েন্ট এর ব্যবহার প্রাচীনকাল থেকে হয়ে আসছে। চোখের ক্ষেত্রে এটি উপকারী একটি পদ্ধতি।

প্রধানত চার ধরনের আকুপাংচার পয়েন্ট আজ আমরা দেখবোঃ

  • প্রথম নাকের পাশে চোখের শেষপ্রান্তে আঙ্গুল দিয়ে ধীরে ধীরে ম্যাসাজ করতে হবে। এটা চোখে লুব্রিকেন্ট ঠিক রাখে। টায়াড চোখকে উপশম দেয়।
  • সেকেন্ড, এবার চোখের ঠিক মাঝখান বরাবর উপরে ভ্রুতে ধীরে ধীরে ক্লকওয়াইজ এবং এন্টি ক্লকওয়াইজ মাসাজ করতে হবে। এটা চোখে রিলাক্সেশন দেয়।
  • তৃতীয় চোখের শেষপ্রান্তে যেখানে আই সকেট শেষ হচ্ছে সেখানে মাসাজ করতে হবে। দীর্ঘ সময় কাজ করতে করতে চোখে ব্যথা অনুভূত হলে এটি খুবই কাজে দেয়।
  • চতুর্থ চোখের ঠিক মাঝখান বরাবর নিচে যেখানে ডার্ক সার্কেল হয়। সেখানে ম্যাসাজ করতে হবে। এটি ডার্ক সার্কেল দূর করে এবং চোখের ক্লান্তি ভাব দূর করে। এটি 30 সেকেন্ড মত করতে থাকুন ক্লকওয়াইজ এবং এন্টি ক্লকওয়াইজ। দুই চোখ বন্ধ করে চোখের পাতার উপর আলতো ভাবে হাত বুলাতে থাকুন ক্লকওয়াইজ এবং এন্টি ক্লকওয়াইজ। এভাবে কুড়ি থেকে ত্রিশ সেকেন্ড করতে থাকুন।

এই ছিল কিছু ইজি টিপস এন্ড ট্রিকস চোখে ভালো রাখার এই পদ্ধতিগুলোর সবকটা প্র্যাকটিস করতে না পারলেও। কয়েকটি মাসেজ ও ব্যায়াম নিয়মিত করতে থাকুন। এবং উল্লেক্ষিত খাবারগুলো খান নিশ্চিতভাবে আপনার চোখ ভালো থাকবে। চশমা প্রয়োজন হবে না।

 

Tags:

চোখের যত্ন,চোখের সমস্যা,চোখের সমস্যা বোঝার উপায়,চোখের সমস্যা দূর করার দোয়া,কোন ভিটামিনের অভাবে চোখের সমস্যা হয়,কি খেলে চোখের সমস্যা দূর হয়,চোখের সমস্যা ও সমাধান,চোখের সমস্যা ও তার প্রতিকার,কম্পিউটার থেকে চোখের সমস্যা,চোখের নিচে কালো দাগ,চোখের নিচে কালো দাগ দূর করার উপায়,
bangladesh eye hospital,eye doctor, eye care bangla health tips,eye care hospital uttara, eye care hospital dhaka,

admin

admin

My name is Md Masudur Rahman. I’m a believer, I’m a dreamer and I’m a doer. I am well known in content creation, Presentation & Leadership skill. I can speak very well both in Bengali and English.

Related post

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।