অচেনা মানুষের সাথে যতক্ষণ খুশি ততক্ষণ কথা বলার সহজ উপায়।

অচেনা মানুষের সাথে যতক্ষণ খুশি ততক্ষণ কথা বলার সহজ উপায়।

আজ আমি আপনাদের মাঝে দুটি টিপস শেয়ার করব যার সাহায্যে আপনি চেনা, অচেনা, বন্ধু, প্রতিবেশি এবং রিলেটিভ যেই হয়ে থাকুক না কেন সবার সঙ্গে আপনি কন্টিনিউ কথা বলতে পারবেন। আপনি যতক্ষণ চাইবেন তাও আবার কোন রকম অসুবিধা ছাড়াই।

যেমন এরপর যে কী বলি, ধুর সব কথাই তো শেষ হয়ে গেল, এবার যে কী বলা যায়। এই কথা বলাটা কী ঠিক হবে। এসব কোন ভাবনাই আর আপনার মনে আসবে না।

আর আমরা সবাই এটা জানি যে, যে মানুষ interesting কথা বলতে পারে, তাদের কে সবাই পছন্দ করে। আর চাকুরির ক্ষেত্রে হোক কিংবা ব্যবসার ক্ষেত্রে, বা অন্য যে কোন সিচুয়েশনে হোক।

যে ভাল কথা বলতে পারে, সেই সবসময় সবকিছুতে আগে থাকে। ক্লাসে এইসমস্ত ছেলে মেয়েদেরকে শিক্ষক এবং অন্য ছাত্র ছাত্রী রাও পছন্দ করে। আর লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন যারা ভালো কথা বলতে পারে তারা সবকিছুতে এগিয়ে থাকে।

তো যাই হোক আপনিও যদি মনে করেন কন্টিনিউ কথা বলতে পারাটা খুবই ভাল একটি গুন তাহলে শেষ পজন্ত পড়ুন।

অচেনা মানুষের সাথে যতক্ষণ খুশি ততক্ষণ কথা বলার সহজ উপায়
অচেনা মানুষের সাথে যতক্ষণ খুশি ততক্ষণ কথা বলার সহজ উপায়

অচেনা মানুষের সাথে যতক্ষণ খুশি ততক্ষণ কথা বলার সহজ উপায়।

1) Question work

  • কেনো
  • কী
  • কখন
  • কেমন
  • কে
  • কোথায়

এই question work গুলো আপনাকে কোথা এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য, অনেক সহযোগিতা করবে। কারন এই কথাগুলির উত্তর দেওয়ার জন্য সামনের জনকে অবশ্যই ডিটেইলস এ কথা বলতে হবে।

আর বেশিরভাগ সময় কোন ব্যাক্তি explanation শুরু করে তখন সে ইমোশনাল লেভেলে চলে যায়। যেটা আপনাকে তার সঙ্গে ইমোশনাল লেবেলে কানেক্টেড হতে খুবি সহযোগিতা করবে।

তবে এই শব্দগুলি দিয়ে শুরু হওয়া প্রশ্ন খুবি ভাল ওপেন প্রশ্ন হতে পারে।

যেমনঃ

  • এই শহরে তুমি কবে থেকে রয়েছো।
  • কেন তুমি ড্রিংক করা পছন্দ করনা।
  • এই কথাটি তুমি কেমন করে জানলে।
  • পৃথিবীর কোথায় কোথায় তোমার যাওয়ার সপ্ন রয়েছে
  • তোমার জীবনে কাকে তুমি সবচাইতে বেশি ভালবাস।
  • তোমার পছন্দের কাজ কোনটি/ তুমি অবসর সময়ে কী করতে সবচেয়ে বেশি পছন্দ করো।

এই ধরনের প্রশ্ন গুলি সবচেয়ে ভাল একটি উদাহরন। আর একটি কথা মাথায় রাখুন আপনি তাকে এই প্রশ্নগুলির মধ্য দিয়ে আপনি তাকে একটি কমন টপিকে নিয়ে আসুন। যে টপিকে কথা বললে আপনারা দুজনেই খুশি হবেন। কিংবা যে টপিকটি আপনাদের দুজনের ই পছন্দ।

আমরা ওই সব মানুষকে বেশি পছন্দ করি যাদের

  • আইডিয়া/ idea
  • চিন্তাভাবনা / Thought
  • পছন্দ ও অপছন্দ

আমাদের সাথে মিলে। তাই সবসময় চেষ্টা করুন common terms এই বেশিক্ষণ কথা বলা যায়।

2) Talking in colours.

পৃথিবীতে দুই ধরনের মানুষ হয়

  • যারা বরিং গল্পতে বা তাদের জীবনে ঘটে থাকা কোন ঘটনাকে খুবি interesting ভাবে ব্যাখ্যা করতে থাকে। আর সবাই সেটা মন দিয়ে শোনে এবং enjoy করে।
  • একধরনের মানুষ হয় যারা একটি ভালো গল্পকেও এমন ভাবে বলে যেটা শুনতে কাউকে ভাল লাগে না। আর কেউ তাদের কথায় interested ও নেয় না।

তাহলে এরকম হওয়ার কারনটা আসলে কী ?

অবশ্যই এইগুলি অনেক কিছু বিষয়ের উপর নির্ভর করে। যেমন তাদের

  • energy level
  • confident
  • তাদের কথাবলার স্টাইল।

কিন্তু এইগুলোর মধ্যেই সবচেয়ে বড় কারনটি হলো

  • Lack of talking in colours

Talking in colours মানে নিজের অভিজ্ঞতা দিয়ে সামনের মানুষটির মাথায় একটি রঙ্গিন কালারফুল ছবি আকা। আড আপনি যত সুন্দর ভাবে এই কাজটি করতে পারবেন, লোকেরাও আপনাকে ততোটাই interesting ভাববে।

অথাৎ আপনাকে পছন্দ করতে শুরু করবে। যেমন আমি যদি এসে আপনাকে বলি আজকে খুব বেশি ট্রাফিক ছিল রাস্তায় একদম মাথা খারাপ হয়ে গেল, তবে এই কথাটি শুনতে মোটেই interesting মনে হবে না। অথাৎ এই কথাটি শুনার পর আপনার মাথায় সাদা কালো ছবিই থাকবে।

কিন্তু যদি এই সেম কথাটি কালারফুল ভাবনার সাথে বলা হয়, যেমন
  • সেখানের দৃশ্য কেমন ছিলো
  • কী কী দেখতে পাচ্ছিলাম
  • কিশের আওয়াজ শুনছিলাম,
  • কেমন অনুভব বা feel করতেছিলাম
  • তোমার কথা মনে পড়তেছিল
  • সেখানকার আবহাওয়া কেমন ছিলো।

তাহলে ব্যাপার টা শুনতে আগের থেকে অনেক interesting লাগবে এবং সবাই মনোযোগ দিয়ে শুনবে এবং enjoy করবে।

তবে আগের কথাটাই যদি কালারফুল ভাবে বলা হয় তাহলে, আজ বাইক চালিয়ে বাড়ি ফেরার সময় মেঘগুলি কুসুমের মত কমলা ছিল। ঠান্ডা হাওয়ায় ভিষন ভাল feel হচ্ছিল। হটাৎ খুব জোরে বাজ পড়ার শব্দ হলো, তারপর কিছুক্ষণ তো আমি শুনতেই পাচ্ছিলাম না।

ভীষণ ভয় পেয়ে গেছিলাম তারপর শুরু হয়ে গেল বৃষ্টি,  হাওয়ার সাথে সাথে বৃষ্টি মুখে জোরে জোরে বাড়ি খেতে লাগলো।

তারপর একটু এগিয়ে গিয়ে দেখি পুরো রাস্তায় ট্রাফিক জ্যাম, চারিদিকে শুধু গাড়ির হর্ন আর আওয়াজ। সেই ভীরে আস্তে আস্তে গাড়ি চালাতে মাথা খারাপ হয়ে যাচ্ছিল। আর বৃষ্টিতে ভিজে যা অবস্তা আমার উফ।

আপনি হয়তো অবশ্যই বুঝতে পেরেছেন কীভাবে আমি এই কালারফুল ভাবনা দিয়ে কথা বল্লাম।

আপনিও যদি আপনার কথাকে আরও ইন্টারেস্টিং বানাতে চান,  তাহলে অবশ্যই এই কৌশলটি ব্যবহার করুন। যার নাম হলো Talking in colours.

যদি আপনি এই লেখাটিকে মনোযোগ দিয়ে পড়ছেন,  তার মানে আপনার মধ্যে সত্যিই ভালো কিছু শিখে নিজেকে improve করার ইচ্ছা রয়েছে। এবং এর সাথে সাথে আরও একটি দারুন কোয়ালিটি আপনার মধ্যে রয়েছে যেটা হলো আপনার ধৈয্য। এটিই আপনাকে সবার থেকে সেরা করে তুলবে।

তাই একটু ধৈর্য ও নিজের উপর বিশ্বাস রেখে এই টিপসগুলোকে প্রচুর প্রাকটিস করতে থাকুন।

এই টিপসগুলি ফলো করলে আপনাকে আর ভেবে কথা বলতে হবে না। অথাৎ interesting কথা বলা আপনার অভ্যাসে পরিনত হবে। যার ফলে আপনার আসেপাশের সমস্ত মানুষের কাছে আপনি একজন interesting এবং আকর্ষনিয় ব্যক্তি হয়ে উঠবেন।

admin

admin

My name is Md Masudur Rahman. I’m a believer, I’m a dreamer and I’m a doer. I am well known in content creation, Presentation & Leadership skill. I can speak very well both in Bengali and English.

Related post

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।